Cheap Jerseys Wholesale Jerseys Cheap Jerseys Wholesale Jerseys Cheap Jerseys Cheap NFL Jerseys Wholesale Jerseys Wholesale Football Jerseys Wholesale Jerseys Wholesale NFL Jerseys Cheap NFL Jerseys Wholesale NFL Jerseys Cheap NHL Jerseys Wholesale NHL Jerseys Cheap NBA Jerseys Wholesale NBA Jerseys Cheap MLB Jerseys Wholesale MLB Jerseys Cheap College Jerseys Cheap NCAA Jerseys Wholesale College Jerseys Wholesale NCAA Jerseys Cheap Soccer Jerseys Wholesale Soccer Jerseys Cheap Soccer Jerseys Wholesale Soccer Jerseys
  • Ad 850
  • Ad 850
  • Ad 850
  • Ad 850

ফেনীতে সতর্ক পুলিশ, ৩০ স্পটে আ’লীগের পাহারা

নিজস্ব প্রতিনিধি
প্রকাশ : অক্টোবর ১০, ২০১৮ | সময় : ১২:১২ অপরাহ্ণ

বহুল আলোচিত ২১ শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে ঘিরে ফেনীতে যে কোনো ধরনের নাশকতা ঠেকাতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এরই মধ্যে বাড়ানো হয়েছে নজরদারি। ব্যবস্থা করা হয়েছে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা।

জেলা পুলিশ সূত্র জানায়, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সড়কের ২৭ কিলোমিটার ও আঞ্চলিক মহাসড়কে পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকে মোতায়েন থাকবে। শহরের মহিপাল, পাঠানবাড়ী রোডের মাথা, সমবায় সুপার মার্কেট, ট্রাংক রোড, কুমিল্লা বাস স্ট্যান্ড, দাউদপুল ব্রীজ, সদর হাসপাতা মোড়সহ বিভিন্ন স্পটে পুলিশ নিয়োজিত থাকবে। ইন্সপেক্টরদের নেতৃত্বে মোবাইল টিমও থাকবে। এরা সন্দেহজনক ব্যক্তি ও গাড়ী তল্লাশী করবে। সবমিলে এদিন সাড়ে ৩শতাধিক পুলিশ নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে। পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাবও সতর্ক অবস্থানে টহলে থাকবে।

এদিকে আওয়ামীলীগ নেতারা জানান, রায়কে ঘিরে কেউ যাতে নাশকতা না করতে পারে সে ব্যাপারে সজাগ থাকবে আওয়ামীলীগ ও সহযোিগ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। দলটির দায়িত্বশীল নেতারা জানান, শহর ও সদর উপজেলার ৩০ টি স্পট চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব স্পটে ১৫-২০ জন করে নেতাকমী পাহারায় নিয়োজিত থাকবে।

পৌর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আবদুল করিম জানান, রায়কে ঘিরে বিএনপি-জামায়াত যদি কোন বিশৃঙ্খলা করে তা নেতাকর্মীদের নিয়ে শক্তভাবে প্রতিহত করা হবে।

ফেনী সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নুর হোসেন জানান, জননিরাপত্তা বিঘিœত না হয় সেজন্য নেতাকর্মীরা সতর্ক পাহারায় থাকবে।

উল্লেখ, ১৪ বছর আগে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে গ্রেনেড হামলা চালিয়ে ২৪ জনকে হত্যা করা হয়। এ সময় আহত হন তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পুলিশ তদন্ত করে ৫২ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। আদালত তা আমলে নিয়ে বিচার শুরু করেন। রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ প্রমাণের জন্য ২২৫ সাক্ষীকে আদালতে হাজির করে। রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে গত ১৮ সেপ্টেম্বর আদালত রায়ের জন্য দিন ঠিক করেন। ৫২ আসামির মধ্যে অন্য মামলায় জামায়াত নেতা আলী আহসান মুজাহিদ, হুজি নেতা মুফতি হান্নানসহ তিনজনের ফাঁসি কার্যকর হয়েছে। কারাগারে আছেন ৩১ আসামি। মামলার আসামি তারেক রহমানসহ পলাতক আছেন ১৮ জন।
সম্পাদনা: আরএইচ/এজে

আপনার মতামত দিন

error: Content is protected !!