• Ad 850
  • Ad 850
  • Ad 850
  • Ad 850

ঈদের কেনাকাটা করতে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়

এম মাঈন উদ্দিন, মিরসরাই
প্রকাশ : মে ২৫, ২০১৯ | সময় : ৪:৪২ অপরাহ্ণ

মিরশরাইয়ে জমে উঠেছে ঈদের কেনাকাটা। গত কয়েক বছরের তুলানায় এবার ক্রেতাদের ভিড় আরো বেশি হচ্ছে। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নিজের পছন্দমত কেনাকাটা করছে মানুষ। তবে পুরুষের চেয়ে নারী ক্রেতা অনেক বেশি। ঈদকে ঘিরে মহা ব্যস্ত সময় পার করছেন দোকানের কর্মকর্তা-কর্মচারী।

শনিবার (২৫ মে) সকালে গিয়ে দেখা গেছে, তিল ধারনের ঠাঁই নেই দোকানগুলোতে । বিশেষ করে নারী-শিশুদের প্রচন্ড ভিড় রয়েছে। সবাই পরিবার-পরিজন নিয়ে কেনাকাটা করতে এসেছেন। এখন শাড়ি থ্রী-পিস এর পাশাপাশি বাচ্চাদের আইটেম বেশি বিক্রি হচ্ছে।
জানা গেছে, মিরসরাই উপজেলা ছাড়াও নিয়মিত কেনাকাটা করে থাকেন পাশ্ববর্তি ছাগলনাইয়া, সোনাগাজী, ফটিকছড়ি, রামগড় উপজেলার লোকজন। ক্রেতাদের ভীড়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে দোকানীদের। বাচ্ছাদের পোষাকের বিশাল সমাহার দর্শকদের নজর কাড়া কাপড় সহজে পছন্দ করে নিচ্ছে ক্রেতসাধারণ।

লাকি ফ্যাশন মলের বিক্রয় কর্মী রুবেল বলেন, মাসের শুরুতে ক্রেতা কম থাকলেও এখন ভীড় বেড়েছে। ঈদ যতই ঘনিয়ে আসছে মলে ক্রেতাদের ভীড়ও বাড়ছে। ঈদের আগ পর্যন্ত ক্রেতাদের ভীড় থাতবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। ঈদ ঘিরে নতুন নতুন পণ্যের সমাহার নিয়ে বসেছে শপিং মলের ব্যাবসায়ীরা। শাড়ির মধ্যে রয়েছে ফাঞ্জিবরন কাতান, বেংলোর কাতান, সফট সিল্ক, পিওর সিল্ক কেটালক, জর্জেট, শিপন, কাতান, কেটালক সুতি, তাঁতের শাড়ি, ঢাকাই জামদানি, মসলিন জামদানি। থ্রি-পিসের মধ্যে কাটা থ্রি-পিস, গাউন, পাকিস্তানি ও ইন্ডিয়ান থ্রি পিস, জপটপ, পানসু ফ্রগ, টপস্, সারারা ইত্যাদি।

কথা হয় ঈদের কেনাকাট করতে আসা উপজেলার করেরহাট ইউনিয়নের ছত্তরুয়া গ্রামের গৃহবধূ শারমীন সুলতানার সাথে। তিনি বলেন, এখানে বিভিন্ন আইটেমের কালেকশান বেশি থাকায় পচন্দ করে কেনা যায়। আরেকটি পন্যের জন্য অন্য জায়গায় যাওয়ার ঝামেলা নেই।ব্যাবসায়ী মোঃ শামসুদ্দিন বলেন, বেচা-বিক্রি মোটামুটি ভালো বিক্রি হচ্ছে। আশা করছি রমজানের শেষের দিকে আরো বেশি বিক্রি হবে। অন্যদিনের তুলানায় ছুটির দিনে ভিড় বেশি থাকে। তিনি আরো বলেন, আমরা প্রায় দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে বারইয়ারহাট বাজারে সুনামের সাথে ব্যবসা করে আসছি।

সম্পাদনা:আরএইচ/এমএমইউ

আপনার মতামত দিন

error: Content is protected !!