• Ad 850
  • Ad 850
  • Ad 850
  • Ad 850

এবার মান ভাঙ্গলো আরজুর

নিজস্ব প্রতিনিধি
প্রকাশ : মে ২৯, ২০১৯ | সময় : ৩:০৩ অপরাহ্ণ

প্রায় দুইমাস কারাভোগের পর মঙ্গলবার মুক্তি পেয়েই জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপির সাথে স্বাক্ষাত করেছেন আলোচিত আওয়ামীলীগ নেতা আজহারুল হক আরজু। এর মধ্য দিয়ে উভয়ের দীর্ঘদিনের বৈরি সম্পর্কের অবসান হবে বলে দলীয় নেতাকর্মীরা মনে করছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বিকালে কারাগার থেকে বেরিয়ে মা, ভাই-বোন সহ স্বজনদের নিয়ে মাষ্টারপাড়ার বাসভবনে গিয়ে সৌজন্য স্বাক্ষাত করেন আরজু। তিনি জেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক ও ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ছিলেন। ২০০১ সালের ১৭ আগস্ট যৌথবাহিনীর অভিযানের মুখে একসময়ের আলোচিত আওয়ামীলীগ নেতা সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল হাজারী দেশান্তরী হওয়ার পর ছন্দপতন ঘটে তার অনুসারীদের মাঝে। ফেনীর আওয়ামী রাজনীতির হাল ধরলে নিজাম হাজারীর দিকে ভীড়তে থাকেন নবীন-প্রবীন সবাই। একে একে সবাই একত্রিত হলেও বিমুখ ছিলেন যথাক্রমে জয়নাল হাজারীর গঠিত তৎকালীন ক্লাস কমিটির ‘ক্যাপ্টেন-১’ হিসেবে পরিচিত যুবলীগের সাবেক আহবায়ক এম. আজহারুল হক আরজু, ‘ক্যাপ্টেন-২’ যুগ্ম-আহবায়ক এম. শাহজাহান সাজু ও ‘ক্যাপ্টেন-৪’ শাখাওয়াত হোসেন। আরজু ও শাখাওয়াত ফেরারী হলেও সাজু আইন পেশায় ঝুঁকে ফেনীতেই বসবাস করেন। একপর্যায়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগমুহুর্তে নিজাম হাজারীর সাথে এক হন সাজু। আরজুও নৌকার পক্ষে ভোট প্রচারণায় নামলেও নিজাম হাজারীর সঙ্গে তাকে দেখা যায়নি। ধর্মপুরে তার বাড়ি সম্মুখস্ত অক্সফোর্ড স্কুল কেন্দ্রে সবকটি ভোট নৌকায় পড়ে।

অনেকে ধারণা করেন, ভোটের পর হয়ত দু’জনের সম্পর্ক শীতল হবে। বরং উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি আরো জটিল হতে থাকে। সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আবদুর রহমান বি.কমকে চ্যালেঞ্জ করে বিদ্রোহী প্রার্থী হন ধর্মপুর ইউনিয়নের তিনবারের চেয়ারম্যান আরজু। প্রথম অবস্থায় কিছু প্রচার-প্রচারণা চালালেও শেষ পর্যায়ে ব্যাপক বাধার মুখে পড়েন তিনি। ভোটের দিন রাতেই আগের দুটি মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এর আগে আরজুর প্রচারণায় এসে আলোচিত আরেক যুবলীগ নেতা সাখাওয়াতও গ্রেফতার হন। ইতিমধ্যে সাখাওয়াত স্বীয় মামলায় জামিন পেলেও আরেকটি হত্যা মামলায় তাকে জেলগেটে গ্রেফতার দেখানো হয়। অপরদিকে ৫৮ দিন কারাভোগ করে গতকাল মঙ্গলবার ফেনী জেলা কারাগার থেকে মুক্তি পান আরজু। সব জল্পনা উড়িয়ে দিয়ে তিনি স্বজনদের নিয়ে বিকালে হাজির হন মাষ্টারপাড়ায়।

সেখানে উপস্থিত অনেকে জানান, দু’জনের মধ্যে হৃদ্যতাপূর্ণ শুভেচ্ছা বিনিময় হয়েছে। অতীতের ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে বলে মনে করছেন দলীয় নেতাকর্মীরা। তারা জানান, নিজাম হাজারীর সঙ্গে আরজুর এ স্বাক্ষাত ফেনীর আওয়ামী রাজনীতিতে নতুন মাত্রা যুক্ত হয়েছে।

সম্পাদনা:আরএইচ/এইচআর/ফেনীর সময়

আপনার মতামত দিন

error: Content is protected !!