ফেনীতে মাকে কোপানোর সাতদিন পর আগুনে পুড়ে সেই ছেলের মৃত্যু • নতুন ফেনীনতুন ফেনী ফেনীতে মাকে কোপানোর সাতদিন পর আগুনে পুড়ে সেই ছেলের মৃত্যু • নতুন ফেনী
 ফেনী |
১৮ জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ফেনীতে মাকে কোপানোর সাতদিন পর আগুনে পুড়ে সেই ছেলের মৃত্যু

নতুন ফেনী ডেস্কনতুন ফেনী ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:১৪ পূর্বাহ্ণ, ১৩ জানুয়ারি ২০২১

মাকে কোপানোর মাত্র সাতদিনের মাথায় ঘরেই আগুনে পুড়ে মারা গেছে মো. সোহাগ নামে এক যুবক। সোমবার (১১ জানুয়ারি) দিনগত রাত ২টায় ফেনীর ধলিয়া ইউনিয়নের অলিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার সকালে স্থানীয়রা মো. সোহাগের ভস্মীভূত লাশ দেখে খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

স্থানীয়রা জানান, সপ্তাহ খানেক আগে সোহাগ তার মাকে কুপিয়ে আহত করে। এরপর থেকেই কিছুটা অস্বাভাবিক আচরণ শুরু করে। মায়ের কাছে টাকা না পেয়ে সে তার মাকে কুপিয়ে আহত করেছিল। সোমবার মধ্যরাতে সোহাগের বাসায় আগুন লাগে। সে আগুনেই সে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার আবুল বশর সবুজ বলেন, অলিপুর গ্রামের নুর নবীর বাড়িতে কেয়ারটেকার হিসেবে থাকেন মৃত ছালেহ আহমদের স্ত্রী নিলুফা আক্তার বালি ও মো. সোহাগসহ তার দুই ছেলে। নুর নবীর বাড়ির সবাই ঢাকা ও অন্যত্র বসবাস করেন। গত ৬ জানুয়ারি সোহাগ তার মাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। বর্তমানে তিনি ফেনী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মাকে কুপিয়ে আহত করার সাতদিনের মাথায় সোহাগ নিজেই আগুনে পুড়ে লাশ হয়ে গেল।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফেনী মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. ইমরান হোসেন বলেন, বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে অন্য কোনো রহস্য আছে কিনা সেটিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
সম্পাদনা:আরএইচ/এইচআর

আপনার মতামত দিন

Android App
Android App
Android App
© Natun Feni. All rights reserved. Design by: GS Tech Ltd.