ছাগলনাইয়ার শহীদ আব্দুর রাজ্জাক সড়ক যেনো মরণফাঁদ • নতুন ফেনীনতুন ফেনী ছাগলনাইয়ার শহীদ আব্দুর রাজ্জাক সড়ক যেনো মরণফাঁদ • নতুন ফেনী
 ফেনী |
২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১০ আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ছাগলনাইয়ার শহীদ আব্দুর রাজ্জাক সড়ক যেনো মরণফাঁদ

মো. কামরুল হাসান, নিজস্ব প্রতিনিধিমো. কামরুল হাসান, নিজস্ব প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:০৬ অপরাহ্ণ, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

দীর্ঘ দিন সংস্কার না হওয়ায় ছাগলনাইয়া পৌরসভার শহীদ আব্দুর রাজ্জাক সড়কটি খানাখন্দে ভরে গেছে। এই সড়কে চলতে গিয়ে বিভিন্ন যানবাহনের প্রতিদিনই ঘটছে নানা রকম দূর্ঘটনা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পৌর শহরের শহীদ আব্দুর রাজ্জাক সড়কে দীর্ঘদিন পর্যন্ত কোন সংস্কার কাজ হওয়ায় অনেক বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে সড়কটি যান চলাচলের অনুপোযুগী হয়ে পড়েছে। এই সড়কে যাত্রী এবং চালকদের নানা রকম দূর্ঘটনা এখন নিত্য নৈমিত্তিক ব্যাপার। ভোগান্তির কারনে এই সড়কে কোন যানবাহন যেতে চায়না।

কখনো বাহন পাওয়া গেলেও ভাড়া গুনতে হয় দ্বিগুন থেকে তিনগুন পর্যন্ত। এতে করে গাড়ীর চালক ও যাত্রীদের সাথে হরহামেশাই বাকবিতন্ডা লেগেই থাকে। তারপরও সড়কটি সংস্কারের প্রয়োজনীয় প্রদক্ষেপ না নেয়ায় স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

শহীদ আব্দুর রাজ্জাক সড়কে প্রতিনিয়ত ছাগলনাইয়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি কলেজ, পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসা, ইম্পিরিয়াল স্কুল, উদয়ন কিন্ডারগার্টেন স্কুলসহ পৌর শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কয়েক হাজার শিক্ষার্থী
চলাচল করতে গিয়ে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা নুর নবী, আশিকুর রহমান, নাদিম, নুরুল আফসারসহ আরো কয়েকজন অভিযোগ করে বলেন, আমরা এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বাজার, হাসপাতাল ও বিভিন্ন জায়গায় যেতে হয়। বহুদিন রাস্তার কোন কাজ না হওয়ায় অনেক বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

কোন রিকশাওয়ালা আসতে চায়না, যদিওবা কেউ আসে তাকে ২০ টাকার ভাড়া দিতে হয় ৫০ টাকা করে। সাবেক পৌর মেয়র আলমগীর বিএ’র সময় যা উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু বর্তমান পৌর মেয়র এম মোস্তফা ক্ষমতায় আসার পর বিগত পাঁচ বছরে এই সড়কের কোন সংস্কার কাজ এবং উন্নয়ন হয়নি।

সাকিব নামে সরকারি কলেজের এক শিক্ষার্থী বলেন, রাস্তাটি ভাঙ্গাচোরা হওয়ায় কোন অটোরিকশা বা গাড়ী যেতে চায়না। কেউ কেউ যেতে চাইলেও ভাড়া দিতে হয় দ্বিগুন। এতে করে তার সময় ও টাকা লস হয় বলে তিনি দাবী করেন। কামাল হোসেন নামের এক সিএনজি চালক জানান, এই সড়কে গাড়ী চালাতে গিয়ে হর-হামেশাই গাড়ীতে যান্ত্রিক ক্রুটি দেখা দেয়।

অনেক সময় রাস্তায়ই গাড়ী নস্ট হয়ে যায়। তাই নির্ধারিত ভাড়া নিলে আমাদের পোষায় না। এব্যাপারে পৌর মেয়র এম মোস্তফা বলেন, পৌরসভার মধ্যে শহীদ আব্দুর রাজ্জাক সড়কটির অবস্থা খুবই খারাপ। বরাদ্দ পেলে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে খুব শীঘ্রই রাস্তাটির সংস্কার কাজ করা হবে বলে তিনি জানান।

সম্পাদনাঃ আরএইচ/এমকেএইচ

 

আপনার মতামত দিন

Android App
Android App
Android App
© Natun Feni. All rights reserved. Design by: GS Tech Ltd.