ফেনীতে করোনায় আক্রান্ত নারীর সংখ্যাই বেশি • নতুন ফেনীনতুন ফেনী ফেনীতে করোনায় আক্রান্ত নারীর সংখ্যাই বেশি • নতুন ফেনী
 ফেনী |
১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৪ আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ফেনীতে করোনায় আক্রান্ত নারীর সংখ্যাই বেশি

নিজস্ব প্রতিনিধিনিজস্ব প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:৩৭ অপরাহ্ণ, ০৬ মে ২০২০

ফেনীতে করোনাভাইরাসে আক্রন্তদের মধ্যে নারীর সংখ্যাই বেশি। স্বাস্থ্য বিভাগের দেয়া তথ্যমতে বুধবার পর্যন্ত জেলায় ৭জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ৪ জনই নারী। অন্যদিকে একদিনেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তিন নারী।

ফেনী স্বাস্থ্য বিভাগের করোনা নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সমন্নয়ক ডা. শরফুদ্দিন মাহমুদ জানান, বুধবার ফেনীতে তিন নারীর শরীরে শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে দুই কিশোরী ও এক নারী জনপ্রতিনিধি রয়েছে। এদের মধ্যে ছাগলনাইয়া উপজেলার গোপল এলাকার নানা বাড়িতে থেকে করোনায় আক্রান্ত হয় মিরসরাই উপজেলার করেরহাটের ১৩ বছরের এক কিশোরী। ৪ মে নমুনা সংগ্রহ করে চট্টগ্রামের বিআইটিআইডিতে পাঠানো হয়। পরে বুধবার তার করোনা প্রজেটিভ আসে।

ওই দিন করোনা প্রজেটিভ আসে ১৭ বছরের আরেক কিশোরীর। ফুলগাজী উপজেলার বরইয়া এলাকার ওই কিশোরী জ্বর নিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এলে তার নমুনা ২৯ এপ্রিল চট্টগ্রামে পাঠানো হয়। বুধবার তারও করোনা প্রজেটিভ আসে।

একই দিন উপজেলা পর্যায়ের নারী জনপ্রতিনিধি (৪০) করোনায় আক্রান্ত হন। গত ৩ মে ওই নারীর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বুধবার রাতে চট্টগ্রামের ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে থেকে নমুনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে। তিনি জায়লস্কও ইউনিয়নের নুরুল্লাপুর গ্রামের বাসিন্দা।

এছাড়াও নারী দাগনভূঞা উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের উত্তর আলামপুরের ঢাকা ফেরত আরো এক নারী করোনায় আক্রান্ত হন। ২২ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ কওে চট্টগ্রামে পাঠানো হলে ২৯ এপ্রিল তার করোনা প্রজেটিভ আসে।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাদ হোসেন জানান, জেলায় এ পর্যন্ত ৪শ ৯৫ জনের করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বিআইটিআইডি ও ভেটেরেনারি থেকে ৩শ ৬ জনের নমুনা প্রতিবেদন আসে। এর মধ্যে ৭ জনের পজেটিভ ও অপরাপরদের নেগেটিভ প্রতিবেদন আসে।

ফেনীর চার উপজেলায় এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ জন। এদের মধ্যে ছাগলনাইয়ায় দুইজন, দাগনভূঞায় তিনজন, সোনাগাজীতে একজন ও ফুলগাজীতে একজনের শরীরে এ ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। ফেনী সদর ও পরশুরামে এখনো করোনা ছোবল দিতে পারেনি।

এদিকে বুধবার সকালে ফেনী ট্রমা সেন্টার থেকে করোনা আক্রান্ত সোনাগাজীর এক যুবক ও ছাগলনাইয়ার এক যুবক ছাড়পত্র পেয়েছে। জেলা স্বাস্থ্যবিভাগের পক্ষ থেকে তাদেও ১৪ দিন হোম আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়েছে।
সম্পাদনা: আরএইচ/এনজেটি

আপনার মতামত দিন

Android App
Android App
Android App
© Natun Feni. All rights reserved. Design by: GS Tech Ltd.