শীতে‌ সুস্থ থাকতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ • নতুন ফেনীনতুন ফেনী শীতে‌ সুস্থ থাকতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ • নতুন ফেনী
 ফেনী |
২৯ জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শীতে‌ সুস্থ থাকতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ

লাইফস্টাইল ডেস্কলাইফস্টাইল ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৪০ অপরাহ্ণ, ২৪ নভেম্বর ২০২০

শেষের পথে পা রেখেছে নভেম্বর। অঘ্রাণ মাসও পড়ে গিয়েছে। কিন্তু এখনও তেমনভাবে শীতের দেখা নেই। এদিকে গত দুদিন ধরে মেঘলা আকাশ। সকালে ঠা ঠা রোদ এখনও আরামদায়ক হয়ে ওঠেনি। মাঝেমধ্যে ফ্যানও চালাতে হচ্ছে। কোনওদিন একটু উত্তুরে হাওয়ায় গা শির শির করলেও পরের দিন আবার সেই গরম। বিশেষজ্ঞদের মতে, এইরকম আবহাওয়ায় কিন্তু সর্দি জ্বর-সহ বিভিন্ন রকম অ্যালার্জির সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। সেই সঙ্গে রয়েছে করোনার প্রকোপও। আর তাই সুস্থ থাকতে গেলে মেনে চলতেই হবে কয়েকটা বিষয়। যেমন-

১. প্রতিদিন সকালে উঠে নিয়ম মাফিক হোক শরীরচর্চা, সেটা মর্নিং ওয়াক হতে পারে বা বাড়ির কোনো খোলা জায়গায় যোগাভ্যাস, তবে ২টোর ক্ষেত্রেই মনে রাখতে হবে ভোরবেলা কিন্তু আবহাওয়া কিছুটা হলেও ঠান্ডা থাকে, তাই মোটা জামা, টুপি ইত্যাদি যেন বাদ না যায়। মোটকথা মাথায় ঠান্ডা লাগানো চলবে না।

২.শরীরচর্চার সাথে দিনের শুরু থেকেই হোক সুষম খাদ্যাভ্যাস, সকালটা শুরু হোক তুলসীপাতা, অঙ্কুরিত ছোলা বা মুগের সঙ্গে ২-৪টে আমন্ড বাদাম দিয়ে। এই কয়েকটা জিনিস কিন্তু শুধু শীতকাল নয় সারা বছর আপনাকে সুস্থ রাখবে।

৩. শরীর চর্চার আধ ঘন্টা থেকে ৪০মিনিটের মধ্যে সেরে নিন ব্রেকফাস্ট। সকালে দুধ চা- টা এড়িয়েই চলুন। হোল গ্রেন সিরিয়ালস (রুটি, ওটস, ডালিয়া)এর সাথে থাকুক যে কোনও প্রোটিন উপাদান যেমন দুধ, ডিম বা ছানা এবং সঙ্গে অবশ্যই সবজি বা স্যালাড।

৪.প্রত্যেকদিন ডায়েটে থাকুক একটা করে মরশুমি ফল

৫. অর্ধেক আমলকি যদি রোজ ডায়েটে রাখা যায় কাছে আসবেনা রোগব্যাধি, এতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন সি যা ইমিউনিটি ভালো রেখে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। আমলকির জুস কিংবা কাঁচাই চিবিয়ে খান।

৬.শীতকাল মানেই সবজির সমারোহ, তাই প্রচুর পরিমাণে সবজি ও স্যালাড দিয়ে প্লেটকে করে তুলুন রঙিন।তবে অবশ্যই বাজার থেকে এনে ভালো করে ধুয়ে নেবেন। বাড়িতেই করতে পারেন কিচেন গার্ডেন, যা থেকে পাবেন টাটকা শাক সবজি, এতে মন ও ভালো থাকবে

৭. শীতকালে ভাত খাওয়ার পর হালকা ঘুমের অভ্যেস কিন্তু অনেকেরই আছে, এটা কিন্তু নৈব নৈব চ। কারণ ভাতঘুম কিন্তু শুধুই আলস্য আনে দৈনিন্দিন রুটিনে।

৮.শীতকাল মানেই নলেন গুড়ের মিষ্টি। সারা বাংলায় একটা সার্ভেতে দেখা গেছে শীতকালে ডায়াবেটিক পেসেন্টদের সুগার কিন্তু অনেকাংশেই নিয়ন্ত্রণে থাকে না, এর প্রধান কারণ প্রিয় নলেন গুড়ের মিষ্টি, তাই তাদের জন্য বলি নিয়ম ভেঙ্গে ইচ্ছেমতো মিষ্টি খাবেন না, বাড়িতে ছানার সাথে অল্প গুড় দিয়ে মিষ্টি করে নিতে পারেন, তবে তা অবশ্যই সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকলে। কিংবা চিঁড়ে দিয়েও বানিয়ে নিতে পারেন নাড়ু।

৯.যত্ন নিন ত্বক ও চুলের ও, এই সময় শুস্কতা কিন্তু সারাক্ষণ এর সঙ্গী, তাই ব্যবহার করুন যথাযথ ময়েশ্চারাইজার।

১০. প্রচুর পানি খান সারাদিনে প্রায় ৩-৪লিটার, যা আপনার শরীরকে আর্দ্র রাখবে।

এই কয়েকটা নিয়ম মানলেই কিন্তু শীত কোনোভাবেই আপনাকে কাবু করতে পারবে না।
সম্পাদনা:আরএইচ/এইচআর

আপনার মতামত দিন

Android App
Android App
Android App
© Natun Feni. All rights reserved. Design by: GS Tech Ltd.