মুনিয়াকে ধর্ষণ-হত্যা : বসুন্ধরা এমডিসহ ৮ জনকে অব্যাহতির সুপারিশ • নতুন ফেনীনতুন ফেনী মুনিয়াকে ধর্ষণ-হত্যা : বসুন্ধরা এমডিসহ ৮ জনকে অব্যাহতির সুপারিশ • নতুন ফেনী
 ফেনী |
২৮ মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুনিয়াকে ধর্ষণ-হত্যা : বসুন্ধরা এমডিসহ ৮ জনকে অব্যাহতির সুপারিশ

নতুন ফেনী ডেস্কনতুন ফেনী ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৪৮ অপরাহ্ণ, ১৯ অক্টোবর ২০২২

রাজধানীর গুলশানে কলেজছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়াকে (২১) ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে করা মামলায় আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে পিবিআই।

বুধবার (১৯ অক্টোবর) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ প্রতিবেদন দাখিল করেন। এ মামলার অভিযোগের সত্যতা না পাওয়ায় বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরসহ ৮ জনকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক সাইফুর রহমান বিষয়টি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, বসুন্ধরার এমডিসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে করা মামলায় পিবিআই চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাকিল আহাম্মদের আদালতে প্রতিবেদন গ্রহণের বিষয়ে শুনানি হবে।

ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৮ আদালতে মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত জাহান তানিয়া বাদী হয়ে এ মামলা করেন। আদালত মামলাটি গ্রহণ করে পিবিআইকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

এ মামলায় বসুন্ধরার এমডি সায়েম সোবহান আনভীর, তার বাবা বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান, মা আফরোজা সোবহান, আনভীরের স্ত্রী সাবরিনা, হুইপপুত্র শারুনের সাবেক স্ত্রী সাইফা রহমান মিম, কথিত মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা, পিয়াসার বান্ধবী ও ঘটনাস্থল গুলশানের ফ্ল্যাট মালিকের স্ত্রী শারমিন ও তার স্বামী ইব্রাহিম আহমেদ রিপনকে আসামি করা হয়।

২০২১ সালের ২৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় গুলশানের ১২০ নম্বর সড়কের ১৯ নম্বর বাসার একটি ফ্ল্যাট থেকে কলেজছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়ার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

আপনার মতামত দিন

Android App
Android App
Android App
© Natun Feni. All rights reserved. Design by: GS Tech Ltd.